ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪ ৫ শ্রাবণ ১৪৩১
অভাবের সংসারে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়ায় বিক্রি করে দিলেন বাবা
নতুন সময় প্রতিবেদক
প্রকাশ: Wednesday, 3 July, 2024, 8:03 PM

অভাবের সংসারে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়ায় বিক্রি করে দিলেন বাবা

অভাবের সংসারে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়ায় বিক্রি করে দিলেন বাবা

সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে সংসার চালান মো. সাদ্দাম। সংসারে আছেন স্ত্রীসহ দুই কন্যা। পুত্র সন্তানের আশায় তৃতীয়বারও জন্ম নেয় কন্যা সন্তান। কন্যাসন্তান জন্মের পর খুশি ছিলেন না তিনি। পরে এক নিঃসন্তান দম্পতির কাছে সন্তানটিকে বিক্রি করে দেয়া হয়।  

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) রাতে চন্দ্রঘোনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর শুক্রবার (২৮ জুন) দুপুরে সিজারের মাধ্যমে কন্যাসন্তান জন্ম দেন সাদ্দামের স্ত্রী সুমি। চিকিৎসা শেষে মঙ্গলবার (২ জুলাই) তাদের বাড়ি যাওয়ার ছাড়পত্র দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু হাসপাতালের বিল বাবদ ১২ হাজার এবং ওষুধ বাবদ আরও ১০ হাজার টাকা পরিশোধ করা বাকি ছিল।

এদিকে, তৃতীয় সন্তানটিও কন্যাসন্তান হওয়ায় অসন্তুষ্ট ছিলেন বাবা সাদ্দাম হোসেন। অভাবের সংসার, হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে না পারায় এমন সিদ্ধান্ত নেন বলে দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে মরিয়মনগর ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুল হক হিরু বলেন, অভাবের কারণে সিএনজি অটোরিকশাচালক সাদ্দাম হাসপাতালের খরচ বাবদ কিছু সুবিধা নিয়ে মেয়েটিকে দত্তক দিয়েছিলেন। পরে স্থানীয় কয়েকজন মহৎ মানুষ নাম প্রকাশ না করার শর্তে টাকাগুলো অনুদান দেন। বিষয়টি নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে টাকাগুলো ফিরিয়ে দিয়ে আমরা মেয়েটিকে উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে তুলে দিয়েছি। এ সময় ওই দম্পতিকে নগদ টাকা, খাদ্যসামগ্রী উপহার দেওয়া হয়। এমনকি উপস্থিত অনেকে বাচ্চার মুখ দেখে আরও বেশ কিছু নগদ টাকাও উপহার দেন। বাচ্চাটির ভরণপোষণের ব্যাপারে আমরা সব সময় খবরাখবর রাখব।

শিশুটির বাবা মো. সাদ্দাম বলেন, হাসপাতালের বিল এসেছে ১২ হাজার। ওষুধ খরচ এবং চিকিৎসকের বিল বাবদ আরও ১০ হাজার টাকা লেগেছে, যা আমার কাছে ছিল না। আমার আরও দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তৃতীয়টাও কন্যাসন্তান হওয়ায় বাধ্য হয়ে চিকিৎসা খরচ জোগাতে বাচ্চাকে খরচের বিনিময়ে নিঃসন্তান আত্মীয়কে দিয়েছি। এখন বাচ্চাকে ফেরত পেয়ে আমি অনেক খুশি। সবাই দোয়া করবেন, তাকে মানুষের মতো মানুষ করতে পারি।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status