ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
সোমবার ২৪ জুন ২০২৪ ১০ আষাঢ় ১৪৩১
নোয়াখালীতে কীটনাশক দিয়ে গাছ জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ: ১৬ লাখ ক্ষয়ক্ষতি
আজিজ আহমেদ,নোয়াখালী
প্রকাশ: Monday, 3 June, 2024, 6:49 PM

নোয়াখালীতে কীটনাশক দিয়ে গাছ জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ: ১৬ লাখ ক্ষয়ক্ষতি

নোয়াখালীতে কীটনাশক দিয়ে গাছ জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ: ১৬ লাখ ক্ষয়ক্ষতি

নোয়াখালী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নে মায়া নার্সারিতে শত্রুতার জের ধরে ৭৫ হাজার গাছ কীটনাশক দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত শুক্রবার দিনগত রাতে ধর্মপুর ইউনিয়নের পূর্ব শুল্লুকিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।


ঘটনার সুত্রে ও সরেজমিনে গেলে জানা যায়,  রাতে কে বা কারা কীটনাশক দিয়ে নার্সারি বিভিন্ন প্রকার বনজ প্রায় ৬০/৭০ হাজার গাছে কীটনাশক ব্যবহার করে গাছ জ্বালিয়ে দিয়েছে।

মায়া নার্সারির মালিক মফিজুর রহমান বলেন, দোকানে ক্যারম খেলতে বাধা দেওয়ায় কারনে মফিজুর রহমান ৬০ শতাংশ জমিতে গড়ে তোলা নার্সারির ৭৫ হাজার চারা গাছ বিষাক্ত কেমিকেল দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

নার্সারিতে আকাশী, বেলজিয়াম, ইউক্যালিপটাস, কড়াই ও লম্বু জাতের ৭৫ হাজার চারা ছিল। এতে প্রায় ১৬ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন।


আবদুর রহিম বলেন, আমার বাবা মফিজুর রহমানের স্থানীয় মহিউদ্দিন মিয়ার সমাজ জামে মসজিদের সভাপতি। শুক্রবার এলাকার দোকানে ক্যারাম খেলতে দেখে তিনি এটা বন্ধের নির্দেশ দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আবদুর রাজ্জাক সফি মেস্তুরির ছেলে আবদুল হামিদ তার সহযোগী মহিউদ্দিন ও সুমন গালমন্দ ও হুমকি দেন। পরে একই রাতে কীটনাশক দিয়ে আমাদের মায়া নার্সারির ৭৫ হাজার গাছ পুড়িয়ে দিয়েছে।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত আবদুল হামিদ বলেন, আমরা এ ঘটনায় জড়িত নই। আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে অভিযোগ করা হচ্ছে। মিথ্যা রটানো হচ্ছে। কে বা কারা এমন করেছে সেটা আমরাও জানি না। গাছ জ্বালিয়ে দেওয়ার ঘটনায় আমরাও বিচার চাই।

রোববার দুপুরে উপজেেলা কৃষি অফিসার মোশরেফুল হাসান ও উপ সহকারী সাবি্বর আহমেদ সহ প্রতিনিধি দল ঘটনার স্থান পরিদর্শন করেন। ক্ষতিগ্রস্ত কৃৃষকের সকল ধরনের সহয়তা করার আশ্বাস প্রদান করেন। এ ঘটনায় মফিজুর রহমান বাদী হয়ে সদর থানায় সাত জনের নাম উলেখ্য করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status