ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ১১ আষাঢ় ১৪৩১
সোনালী ব্যাংকে দুই ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট বন্ধের অনুরোধ যুক্তরাষ্ট্রের
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Thursday, 17 August, 2023, 12:36 AM

সোনালী ব্যাংকে দুই ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট বন্ধের অনুরোধ যুক্তরাষ্ট্রের

সোনালী ব্যাংকে দুই ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট বন্ধের অনুরোধ যুক্তরাষ্ট্রের

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় থাকা মিয়ানমারের দুটি ব্যাংকের সঙ্গে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংকের লেনদেন এবং হিসাব পরিচালনা বন্ধ করতে সরকারকে চিঠি দিয়েছে ঢাকায় মার্কিন দূতাবাস।

নিষেধাজ্ঞায় পড়া মিয়ানমা ইনভস্টমেন্ট অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক (এমআইসিবি) ও মিয়ানমা ফরেন ট্রেড ব্যাংক (এমএফটিবি) এর ব্যাংক হিসাব রয়েছে বাংলাদেশের সোনালী ব্যাংকে। একইভাবে মিয়ানমারের ব্যাংক দুটিতেও সোনালী ব্যাংকের ‘নস্ট্রো’ অ্যাকাউন্ট রয়েছে।

লেনদেনের পাশাপাশি অন্য কোথাও অর্থ সরিয়ে নেওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় তা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত দুই দেশের ব্যাংকের হিসাব ‘ফ্রিজ’ থাকবে বলে জানিয়েছেন সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফজাল করিম।

বিদেশের কোনো ব্যাংকে বিদেশি মুদ্রায় লেনদেন করতে দেশীয় ব্যাংকের খোলা অ্যাকাউন্টকে বলে ‘নস্ট্রো’ হিসাব। আর দেশীয় ব্যাংকে বিদেশি ব্যাংকের খোলা হিসাবকে বলা হয় ‘ভস্ট্রো’।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রায়ত্ত ওই দুই ব্যাংকের ওপর গত জুন মাসে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। ঢাকায় মার্কিন দূতাবাস সম্প্রতি বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়ে ওই ব্যাংক দুটিতে সোনালী ব্যাংকের হিসাব বন্ধের অনুরোধ জানায়।

এরপর সেই চিঠি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘুরে অর্থমন্ত্রণালয় হয়ে সোনালী ব্যাংকে পৌঁছায়। মিয়ানমারের ব্যাংক দুটিতে থাকা সোনালী ব্যাংকের ‘নস্ট্রো’ হিসাব এখন কী করা হবে, তা জানতে চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংককে চিঠি দেয় সোনালী ব্যাংক।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফজাল করিম বলেন, মিয়ানমা ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক ও মিয়ানমা ফরেন ট্রেড ব্যাংকের হিসাব রয়েছে সোনালী ব্যাংকে। একটি হিসাবে এক লাখ এবং অন্যটিতে ১০ লাখ পাউন্ড স্টার্লিং রয়েছে।

অন্যদিকে মিয়ানমারের দুটি ব্যাংকে সোনালী ব্যাংকের এক লাখ ৭০ হাজার পাউন্ড রয়েছে। নিষেধাজ্ঞার কারণে এখন দুই দেশে সবগুলো হিসাব ‘ফ্রিজ’ থাকবে।

“আপাততো কোনো ট্রানজেকশন হবে না ব্যাংক দুটির সঙ্গে। আমাদের অর্থও ফ্রিজ থাকবে। আমরা বাংলাদেশ ব্যাংককে জানিয়েছি, তারা এখন সিদ্ধান্ত দেবে, আমরা কী করব।”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মেজবাউল হক বলেন, চিঠির বিষয়বস্তু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আইনি সিদ্ধান্ত দেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status