ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ৬ শ্রাবণ ১৪৩১
রাহ্মণবাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মীরা
ইয়াছিন মাহমুদ
প্রকাশ: Monday, 1 July, 2024, 7:03 PM

রাহ্মণবাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মীরা

রাহ্মণবাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মীরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়  দুই দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

সোমবার সকাল সাড়ে -১০টার থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়ে তারা এই আন্দোলন কার্যক্রম শুরু করেন। আন্দোলন চলাকালে জেলার প্রত্যন্ত এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজে নিয়োজিত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ গ্রহণ করেন।

এসময় তারা বলেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মীরা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। অপরদিকে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) তারা কোন কাজ না করে অদক্ষতার পরিচয় দিচ্ছেন। তারা বিদ্যুৎ বিভাগের জন্যে নিম্ন মানের সামগ্রী ক্রয় করার কারনে গ্রাহকরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

এর দায় নিতে হচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিকে। বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজে নিয়োজিত কর্মীরা একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলেও পদ-পদবী, বেতন-ভাতা, বোনাসসহ পদোন্নতির ক্ষেত্রে চরম বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।
আন্দোলন চলাকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বিলিং সহকারী জেসমিন আক্তার ও রিয়া পাল বলেন, আমাদের এখানে কাজ নাই, মজুরী নাই ভিত্তিতে কাজ করছি। আমরা এত বছর ধরে কাজ করলেও আমাদের চাকরী স্থায়ী করণ করা হচ্ছে না। এখানে প্রতিদিন দুইজনের কাজ একজন করতে হচ্ছে। একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলেও পদ-পদবী, বেতন-ভাতা, বোনাস সহ পদোন্নতির ক্ষেত্রে চরম বৈষম্যের শিকার হচ্ছি।

তাই আমাদের দাবি কাজ নাই, মজুরী নাই এই চুক্তিতে আমরা নাই। আমাদের ঘোষিত দুটি দাবি হলো-স্মার্ট ও টেকসই বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বিনির্মানে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি)-পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি (পিবিএস) একীভূতকরণ সহ অভিন্ন চাকরি বিধি বাস্তবায়ন করতে হবে।  ভবিষ্যত বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সচল রাখতে এবং গ্রাহক সেবার মান উন্নয়নের জন্য সকল চুক্তিভিত্তিক ও অনিয়মিত কর্মচারীদের চাকরি নিয়মিত করতে হবে।

অন্যথায় এই আন্দোলন চলমান থাকবে।ব্রাহ্মণবাড়িয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির এজিএম (আইটি) মোঃ ওয়ালিউল্লাহ জানান, এর আগেও আমরা গত ৫ মে  আন্দোলনে গিয়েছিলাম। তখন আমাদের আশ্বাস দিয়ে কাজে ফেরানো হয়েছিলো। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি (পিবিএস) এর কর্মীরা। অপরদিকে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। তারা বিদ্যুৎ বিভাগের জন্যে নিম্নমানের সামগ্রী ক্রয় করার কারণে গ্রাহকেরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এর দায় নিতে হচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিকে। দ্রুত আমাদের সমস্যাগুলো সমাধান করে আমাদের দাবিগুলো বাস্তবায়ন করা হোক। উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৫ মে থেকে একই দাবিতে কর্মবিরতি পালন শুরু করেছিলেন কর্মকর্তা কর্মচারীরা। ১৫ কার্য দিবসের মধ্যে সমস্যা সমাধানে আলোচনায় বসবে-বিদ্যুৎ বিভাগের এমন আশ্বাসে কাজে ফিরে হয়। কিন্তু সেটি গত দুই মাসে
ও বাস্তবায়ন হয়নি।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status