ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
আদা-রসুন বেটে ফ্রিজে রাখেন নাকি? কিংবা বেঁচে গেলে পেঁয়াজও! জানেন এতে কী প্রভাব পড়ে শরীরে, হতে পারে চরম ক্ষতি
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Thursday, 30 May, 2024, 1:51 PM

আদা-রসুন বেটে ফ্রিজে রাখেন নাকি? কিংবা বেঁচে গেলে পেঁয়াজও! জানেন এতে কী প্রভাব পড়ে শরীরে, হতে পারে চরম ক্ষতি

আদা-রসুন বেটে ফ্রিজে রাখেন নাকি? কিংবা বেঁচে গেলে পেঁয়াজও! জানেন এতে কী প্রভাব পড়ে শরীরে, হতে পারে চরম ক্ষতি

ডায়েটিশিয়ান ডাঃ আশা সিং জানাচ্ছেন, মানুষ খাবার নষ্ট হওয়া থেকে বাঁচাতে সেগুলি ফ্রিজে রাখে। কিন্তু এমন অনেক জিনিস আছে, যা ফ্রিজে রেখে খেলে ক্ষতি হতে পারে। এসব খাবারে বিষাক্ত উপাদান থাকতে পারে। যা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।

আজকাল আমরা প্রত্যেকেই ব্যস্ত৷ প্রতিদিন সকালে বাজার করতে যাওয়ার সময় আর কার আছে৷ তাই ছুটির দিনে ব্যাগ ভর্তি বাজার করে তুলে রেখে দিই ফ্রিজে৷ কারণ, আমরা প্রত্যেকেই জানি ফ্রিজে ফল হোক বা সব্জি সব তাজা থাকে৷ শুধু তাই নয়, রান্নায় সুবিধার জন্য আমরা পেঁয়াজ, আদা, রসুনও বেটে ফ্রিজে রেখে দিই৷

কিন্তু, আমরা কি জানার চেষ্টা করি, এই যে ফ্রিজের ভিতরে রেখে দেওয়া বাটা কিংবা ঘষা মশলা, পেঁয়াজ, রসুন, আদা এমনকি, কেটে রাখা আলুর মতো কিছু সবজিও আমাদের শরীরে ঠিক কী ধরনের প্রভাব ফেলে?

ডায়েটিশিয়ান ডাঃ আশা সিং জানাচ্ছেন, মানুষ খাবার নষ্ট হওয়া থেকে বাঁচাতে সেগুলি ফ্রিজে রাখে। কিন্তু এমন অনেক জিনিস আছে, যা ফ্রিজে রেখে খেলে ক্ষতি হতে পারে। এসব খাবারে বিষাক্ত উপাদান থাকতে পারে। যা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, আদা, রসুন, পেঁয়াজ এবং রান্না করা ভাত ইত্যাদি জিনিস ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। অনেকক্ষণ ফ্রিজে রাখলে ঠান্ডার কারণে তাদের মধ্যে নানা রাসায়নিক পরিবর্তন ঘটে, স্বাদ বদলে যায়।

আলু ফ্রিজে রাখলে তাতে ক্ষতিকর রাসায়নিক তৈরি হয়। এই রাসায়নিকটির নাম অ্যাক্রিলামাইড। এই রাসায়নিকটি বেশ ক্ষতিকর। তাই কাঁচা আলু কখনওই ফ্রিজে রাখবেন না।
একইভাবে, রসুনও ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। রসুন ব্যবহার করার ঠিক আগেই তা কেটে নিন। কারণ, রসুন রাখলেও তাতে ফাঙ্গাস জন্মায়। এমন রসুন খাওয়া শরীরের জন্য কখনওই ভাল নয়। অনেক সময় কম দামে খোসা ছাড়ানো রসুন কিনে থাকি আমরা। এটিও কখনও করবেন না, এটি আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

পেঁয়াজও ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। পেঁয়াজ ফ্রিজে রাখলে এতে উপস্থিত স্টার্চ সুগারে পরিণত হয়। এ কারণে ফ্রিজে রাখা পেঁয়াজে ছত্রাক জন্মানোর ঝুঁকি বেড়ে যায়। পেঁয়াজ ও রসুনের মতো আদা ফ্রিজে রাখবেন না। আদা ফ্রিজে রাখলে তা দ্রুত ফাঙ্গাস ধরে যায়। এটি খেলে শরীরে বিষাক্ত পদার্থ প্রবেশ করে যা লিভার ও কিডনির জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারে। তাই বাড়িতে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় আদা সংরক্ষণ করুন।

ডায়েটিশিয়ান ডাঃ আশা সিং বলেন, রান্না করা ভাত বা সেদ্ধ আলু ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। আমরা যদি এগুলিকে ফ্রিজে রাখি তবে সেগুলি পুনরায় গরম করা উচিত নয়। এতে ভাত ও আলু সেদ্ধয় রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটে যার কারণে ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এর পাশাপাশি সবজি যেমন লাউ, এঁচোড় ইত্যাদিও ফ্রিজে রাখা উচিত নয়।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status