ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ২ আষাঢ় ১৪৩১
পাথরঘাটায় দীর্ঘ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী
ইব্রাহীম খলীল,পাথরঘাটা
প্রকাশ: Monday, 3 June, 2024, 6:41 PM

পাথরঘাটায় দীর্ঘ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

পাথরঘাটায় দীর্ঘ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় রেমালে বিপর্যস্ত বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গ্রাহকদের কাছ থেকে বাড়তি অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।

গত ২৬ ও ২৭ মে দীর্ঘস্থায়ী ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর তান্ডবে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় গাছ উপচে পড়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কারনে দীর্ঘ ৯ দিনেও বিদ্যুৎ এর দেখা পায়নি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের লোকজন। ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর তিন-চারদিন পড়ে পাথরঘাটা সদরের কিছু কিছু জায়গায় ও উপজেলার বড় বড় বাজারে সংযোগ দিলেও দিনে-রাতে সবমিলিয়ে ৩/৪ ঘন্টার বেশি বিদ্যুৎ এর সুবিধা পাচ্ছে না গ্রাহকরা, সকাল ৮ টায় বিদ্যুৎ গেলে আসে সন্ধ্যা ৭টার পরে, আবার অনেক দিন তো রাতেও থাকে না। যে সকল এলাকায় এখনো সংযোগ মেলেনি তারা মোবাইল চার্জ দিতে গেলে জেনারেটর মালিকরা হাতিয়ে নিচ্ছে মোবাইল প্রতি ৩০ থেকে ৫০ টাকা। ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া লোকজনের এখন আবার বিদ্যুৎ এর সংযোগে গুনতে হচ্ছে বাড়তি টাকা।  সবমিলিয়ে জৈষ্ঠ্যমাসের গরমসহ বিদ্যুৎ না থাকায় চরম সমস্যার সম্মুখীন হয়ে পড়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো,ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিদ্যুৎ ছাড়া ক্লাস করা কষ্টকর, পাশাপাশি সমস্যায় পড়েছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিদ্যুৎ মুখী নানান পেশার মানুষ।

এদিকে বিদ্যুৎ এর সংযোগ সুবিধা নিতে স্থানীয় ইলেকট্রেশিয়ানদের কাছে গেলে গ্রাহক প্রতি ৫০/১০০ টাকার বিনিময়ে কিছু কিছু এলাকায় সংযোগ দিতে দেখা যায়, যে সকল এলাকায় গ্রাহকরা বাড়তি অর্থ না দেয় সেখানে দীর্ঘদিনেও মিলছে না বিদ্যুৎ এর সংযোগ। বাড়তি অর্থ দেয়া গ্রাহকরা নাম না জানানোর শর্তে বলেন বাড়তি টাকা না দিলে বিদ্যুৎ এর সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে অন্ধকারে থাকতে হয় তাই বাধ্য হয়ে আমরা বাড়তি টাকা দিয়ে বিদ্যুৎ এর সংযোগ নিয়েছি। তাদের দাবি বিদ্যুৎ এর অফিস থেকে ঠিকমত কাজ করলে এতদিন লাগার কথা না, অফিসের গাফেলতির কারনে সাধারণ মানুষ এতো গরমের মধ্যে কষ্টে দিন কাটাচ্ছে।

সংযোগের নামে বাড়তি অর্থ আদায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে পাথরঘাটা পল্লী বিদ্যুৎ এর জোনাল অফিস থেকে বলেন, গ্রামে গ্রামে দ্রুত সংযোগের নামে বাড়তি অর্থ আদায়ের বিষয়টি আমরা শুনেছি, তবে এ ব্যাপারে বিদ্যুৎ অফিসের কোন নির্দেশনা নাই, ঘূর্ণিঝড়ে বিপর্যস্ত বিদ্যুৎ এর সংযোগ দিতে কোন বাড়তি টাকা লাগে না, যারা বাড়তি টাকা আদায় করতেছে তাদেরকে ধরে সকলে মিলে আইনের হাতে তুলে দিন। আমরা অতিদ্রুত সংযোগ দিতে আমাদের কাজ চলমান রয়েছে, আশাকরি খুব তাড়াতাড়ি সকল স্থানে বিদ্যুৎ এর সংযোগ দিতে সক্ষম হবো।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status