ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
রাসিক মেয়রের সঙ্গে ডিজাব সদস্যদের মতবিনিময়
পদ্মা নগরীর কাছে বঙ্গবন্ধু রিভারসিটি গড়ে তোলার পরিকল্পনা: লিটন
নতুন সময় প্রতিবেদক
প্রকাশ: Sunday, 2 June, 2024, 9:29 PM

পদ্মা নগরীর কাছে বঙ্গবন্ধু রিভারসিটি গড়ে তোলার পরিকল্পনা: লিটন

পদ্মা নগরীর কাছে বঙ্গবন্ধু রিভারসিটি গড়ে তোলার পরিকল্পনা: লিটন

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মাননীয় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেছেন ডিফেন্স জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিজাব) এর নেতা ও সদস্যরা।

শুক্রবার (৩১ মে) দিবাগত রাতে নগর ভবনে মেয়রের কার্যালয়ে এই সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় রাজশাহী মহানগরীর সবুজায়ন, পরিচ্ছন্নতা, আলোকায়ন ও সৌন্দর্যের ভূয়সী প্রশংসা করেন ঢাকা থেকে আগত সিনিয়র সাংবাদিকরা।

সভায় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশিত পথে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর সৈনিক হিসেবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, রাজশাহী মফস্বল শহর ছিল। সেখান থেকে আমরা উত্তোরণ করতে পেরেছি। রাজশাহী এখন একটা জায়গায় পৌঁছে গেছে। রাজশাহীর সুনাম দেশের সীমানা পেরিয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। নিজের শহরের প্রতি ভালোবাসা থাকলে, কাজ করার ইচ্ছে থাকলে একটা শহরকে কোথায় নিয়ে যাওয়া যায়, সেটি আমরা প্রমাণ করতে পেরেছি। নাগরিকদের সহযোগিতা নিয়ে আমরা এই কাজটি করতে পেরেছি। রাজশাহীকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবো।

মেয়র বলেন, দক্ষ জনগোষ্ঠী তৈরি ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে রাসিক স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট চালু করা হয়েছে। সেখানে প্রথম ব্যাচে প্রশিক্ষণ নিয়ে এরই মধ্যে ৯০ জন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ পেয়েছে। এই ইনস্টিটিউট ওয়ার্ড পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে চাই।

রাসিক মেয়র বলেন, পদ্মা নগরীর কাছে বঙ্গবন্ধু রিভারসিটি গড়ে তোলার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এই মেয়াদে এই কাজের সূচনা করতে চাই। যেখানে একটি সোলার প্যানেল দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, অত্যাধুনিক রিসোর্ট, সুইমিং পুলসহ পর্যটনভিত্তিক নানা সুযোগ সুবিধা থাকবে। এটি রাজশাহীর ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে। এছাড়া ভারতের সঙ্গে নৌ রুট চ্যানেল তৈরির মাধ্যমে রাজশাহীতে একটি নদীবন্দর প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এটি প্রতিষ্ঠা হলে এই অঞ্চলসহ সারাদেশে বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে ব্যাপকভাবে সুফল পাওয়া যাবে।

সভায় ডিজাব সভাপতি আলমগীর হোসেন বলেন, রাজশাহী এখন এক বদলে যাওয়া নগরী। এই নগরীতে এতে আমি ও আমার সহকর্মীরা মুগ্ধ হয়েছি। এমন সুন্দর ও পরিকল্পিত নগরী গড়ায় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ভাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আলমগীর হোসেন বলেন, রাজশাহী সৌন্দর্য ও পরিচ্ছন্নতায় এখন দেশের শ্রেষ্ঠ শহরে পরিণত হলেও কর্মসংস্থানের দিক থেকে অনেক পিছিয়ে। নগরীর সৌন্দর্য ঠিক রেখে শিল্পায়ন গড়ার পাশাপাশি কর্মসংস্থানের দিকে বিশেষ নজর দিতে নগরপিতা ও সরকারকে আহ্বান জানান তিনি।

সাধারণ সম্পাদক আহম্মদ উল্লাহ বলেন, আমি অনেক দেশের অনেক শহর ঘুরেছি। রাজশাহীতে এসে মনে হচ্ছে বিদেশের কোনো উন্নত শহর। রাজশাহী হচ্ছে বাংলাদেশের সিঙ্গাপুর। প্রশস্ত রাস্তা, রাস্তার ধারে ও আইল্যান্ডে গাছ, সব কিছু দেখে মুগ্ধ হয়েছি। ইউনিক একটা শহর রাজশাহী।

সাক্ষাৎকালে রাসিক মেয়রকে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করেন ডিজাবের নেতারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিজাব সভাপতি ও দৈনিক সময়ের আলোর বার্তা প্রধান আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ও দ্য বাংলাদেশ পোস্টের সিনিয়র রিপোর্টার আহম্মদ উল্লাহ, যুগ্ম সম্পাদক ও দৈনিক মানবজমিনের সিনিয়র রিপোর্টার কাজী সোহাগ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও দেশ টিভির সিনিয়র রিপোর্টার মিরাজ মিজু, দপ্তর সম্পাদক ও আজকালের খবরের সিনিয়র রিপোর্টার ইসমাইল হোসেন ইমু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও দ্য নিউজের সিনিয়র রিপোর্টার কামাল হোসেন তালুকদার।

কার্যনিবাহী সদস্য ও বাংলা টিভির অ্যাসাইনমেন্ট এডিটর এম এম বাদশাহ, কার্যনির্বাহী সদস্য ও দ্য বিজনেস পোস্টের সিনিয়র রিপোর্টার আরিফুর রহমান রাব্বি, দৈনিক আজকের পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি আয়নাল হোসেন, দৈনিক ইত্তেফাকের সিনিয়র রিপোর্টার জামিউল আহসান সিপু, ডেইলি নিউ এজের সিনিয়র রিপোর্টার মুক্তাদির রশিদ রোমিও, দৈনিক নতুন সময়ের চিফ রিপোর্টার বিপ্লব বিশ্বাস, সময় টিভির বিশেষ প্রতিনিধি ওমর ফারুক, বাংলা ভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার সৈয়দ আব্দুল মুহিত, নিউজ টুয়েন্টি ফোরের স্টাফ রিপোর্টার মাসুদা লাবনী, আরটিভির সহসম্পাদক মনোরমা আকতার, দৈনিক সময়ের বিশেষ প্রতিনিধি মাসুম মিজান, ডেইলি সানের সিনিয়র রিপোর্টার মুহিব জামান। এ সময় ডিজাব টিমের সঙ্গে আইএসপিআর এর সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান ও রেজা-উল করিম শাম্মীও উপস্থিত ছিলেন।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status