ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ১১ আষাঢ় ১৪৩১
প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চায় কক্সবাজারের ভূমিহীন ২৮ পরিবার
শামীম শেখ
প্রকাশ: Tuesday, 11 June, 2024, 4:13 PM

প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চায় কক্সবাজারের ভূমিহীন ২৮ পরিবার

প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চায় কক্সবাজারের ভূমিহীন ২৮ পরিবার

কক্সবাজারের উখিয়ায় অসহায় ২৮ পরিবার ভূমিহীনমুক্ত হতে চায়। ভূমিহীনমুক্ত হতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সহযোগীতা চেয়েছেন তারা। 

মঙ্গলবার ১১ জুন, সকালে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন একজন প্রতিবন্ধী যুবক ইমরান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ২৮ টি পরিবারের কোন জমি না থাকায় বর্তমানে উপজেলা থানাধীন রাজাপালং ইউনিয়নের টি.এন্ড টি গুচ্ছ গ্রামের দক্ষিণে পাহাড়ী বনভূমিতে বাসস্থান নির্মাণ করে ২৯ বছর যাবৎ বসবাস করছে। কৃষি জমি ও খামার নির্মাণ করে জীবিকা নির্বাহ করছে। বর্তমানে তাদের এই বসতভিটা ছাড়া বসবাসের কোন জায়গা নেই।  
জানা যায়, ভুক্তভোগী পরিবারগুলো উখিয়া ডিগ্রী কলেজ প্রতিষ্ঠার পূর্বে কলেজের মাঠে বসবাস করতো। সাবেক সাংসদ শাহজাহান চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অধ্যক্ষ এম.ফজলুল করিমের হস্তক্ষেপে তাদেরকে উক্ত জায়গা থেকে বর্তমান বসবাসরত স্থানে স্থানান্তর করা হয়। 

ভুক্তভোগী পরিবার আরো জানায়, বর্তমান বসবাসরত স্থানে শেখ রাসেল স্টেডিয়াম নির্মাণের উদ্দেশ্যে  যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সাইনবোর্ড বসানো হয়েছে। গত ০১/১০/২০২৩  তারিখ ৪০-৪৫ জন লোক দেশীয় অস্ত্রসহ জমিতে প্রবেশ করে প্রায় ৫০০ শতাধিক গাছপালা ধ্বংস ও প্রায় দশ লাখ টাকার ক্ষতি করে। 

উপজেলার নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি জানানো হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থলে পৌঁছালে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী পরিবারগুলো প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সহযোগিতা চেয়েছেন। তারা বলেন, এই দেশে ১২ লক্ষ রোহিঙ্গা থাকতে পারলে তারা কেন থাকতে পারবে না। তারা চায় শেখ রাসেলের নামে স্টেডিয়াম হোক, বসবাসের জন্য তাদেরকেও বাস্থানের ব্যবস্থা করে দেওয়া হোক।

ভুক্তভোগীরা জানায়, বসতভিটা ছেড়ে না গেলে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে তারা জীবননাশের আশঙ্কায় আছে। এ বিষয়ে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া এদেশে কেউ কোন সিদ্ধান্ত দিতে পারবে না বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা । 

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের টিএন্ডটি এলাকায় বহুল প্রত্যাশিত শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামটি নির্মাণ  করা হচ্ছে। স্টেডিয়ামের জন্য ৩ একর সরকারি খাস জমি বিধি মোতাবেক বন্দোবস্ত দেওয়া হয়েছে।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status