ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
সদস্য হোন |  আমাদের জানুন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ৯ বৈশাখ ১৪৩১
নারীদের পাথর ছুড়ে হত্যার প্রথা ফিরিয়ে আনছে তালেবান
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Saturday, 30 March, 2024, 1:08 AM

নারীদের পাথর ছুড়ে হত্যার প্রথা ফিরিয়ে আনছে তালেবান

নারীদের পাথর ছুড়ে হত্যার প্রথা ফিরিয়ে আনছে তালেবান

দুই দশক পর ২০২১ সালের আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসে তালেবান। এরপর থেকেই নারীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে তারা। কেড়ে নেওয়া হয় নারীদের শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের অধিকার। ফের নারীদের বিরুদ্ধে আরেকটি কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তালেবান সরকার। ব্যভিচারের শাস্তি হিসেবে নারীকে জনসম্মুখে পাথর ছুড়ে হত্যার প্রথা চালু করার ঘোষণা দিয়েছে তারা। খবর দ্য টেলিগ্রাফের।

সম্প্রতি তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা পাশ্চাত্য গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে জনসমুক্ষে নারীদের পাথর মেরে হত্যা শুরু করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমে সম্প্রচারিত একটি বার্তায় মোল্লা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা পশ্চিমা কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় নারীদের অধিকারের পক্ষে যে ওকালতি করছে তা শরিয়াহবিরোধী। পাথর মেরে হত্যা করা নারী অধিকারের লঙ্ঘন। কিন্তু, আমরা শিগগিরই ব্যভিচারের শাস্তি কার্যকর করব। আমরা নারীদের জনসমক্ষে বেত্রাঘাত করব। আমরা তাদের জনসমুক্ষে পাথর মেরে হত্যা করব।

তালেবান সরকার পরিচালিত করলেও সচারচর জনসম্মুখে দেখা যায় না হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদাকে। ধারণা করা হচ্ছে তিনি কান্দাহারের দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থান করছেন। বার্তায় তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, আমি মুজাহেদিনদের বলেছিলাম যে আমরা পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে ২০ বছর যুদ্ধ করেছি। দরকার পড়লে আরও ২০ বছর আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করব।

আফগানিস্তান থেকে সোভিয়েত সেনা প্রত্যাহারের পর পাকিস্তান থেকে তালেবানের যাত্রা শুরু। গত শতকের ৯০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে তালেবানের ব্যাপক উত্থান হয়। ১৯৯৫ সালের সেপ্টেম্বরে তারা আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশের নিয়ন্ত্রণ নেয়। এর ঠিক এক বছর পর কাবুলের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় তালেবানের হাতে। ২০০১ সালে ক্ষমতাচ্যুত যুক্তরাষ্ট্রের হাতে ক্ষমতা হারায় তালেবান। দুই দশক পর ফের ক্ষমতায়ঢ আসে তারা।

ক্ষমতায় এসেই নারীদের অধিকার ও স্বাধীনতা ক্ষেত্রে আগের তুলনায় উদারতার কথা জানিয়েছিল তালেবান সরকার। মুখে এক কথা বললেও ঠিক উল্টো পথে হাঁটছে তারা। বৈশ্বিক সংস্থা জাতিসংঘের মতে, নারী অধিকার বিষয়ে বিশ্বের সবচেয়ে নিপীড়নকারী দেশ আফগানিস্তান। তালেবান কর্তৃপক্ষ যেসব সরকারি চাকরিতে নারী থাকা অপরিহার্য, সেসব জায়গা ছাড়া অন্য সব ক্ষেত্র থেকে নারীদের সরিয়ে দিয়েছে। আবার কাউকে কাউকে বাড়িতে থাকার জন্য আগের বেতনের একটি অংশ দিচ্ছেন। পার্ক, বিনোদনকেন্দ্র, ব্যায়ামাগার থেকে নারীদের নিষিদ্ধ করেছে। এমনকি নারীদের প্রকাশ্যে আসতে হলে বোরকা পরে আসা বাধ্যতামূলক করেছে।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status