ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
সদস্য হোন |  আমাদের জানুন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১০ ফাল্গুন ১৪৩০
হাসপাতালের বেড থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ফোন, তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা
নতুন সময় প্রতিবেদক
প্রকাশ: Saturday, 3 February, 2024, 11:44 AM
সর্বশেষ আপডেট: Saturday, 3 February, 2024, 12:33 PM

হাসপাতালের বেড থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ফোন, তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা

হাসপাতালের বেড থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ফোন, তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা

চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিতদের নিরাপত্তা রক্ষায় আবারো তাৎক্ষণিক তাদের পাশে দাঁড়ালেন নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। শরীয়তপুরে ডামুড্যা উপজেলায় চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনায় তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছেন তিনি। হামলার শিকার চিকিৎসক নুসরাত তারিন তন্বী হাসপাতালের বেড থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে জানালে তিনি তাৎক্ষণিক ব্যবস্থার নির্দেশ দেন। পরে গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত দুইজনকে।

নির্দিষ্ট কোম্পানির ওষুধ প্রেসক্রাইব না করায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এই নারী চিকিৎসকের ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে এক আওয়ামী লীগ নেতা, ছাত্রলীগ নেতা ও ওষুধ কোম্পানির কর্মীর বিরুদ্ধে। বুধবার (৩১ জানুয়ারি) রাতে বাড়ি ফেরার পথে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

হামলায় ডা. নুসরাত তারিন তন্বী ও তার স্বামী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. রাফি আহত হন। আহত অবস্থায় বাসায় পৌঁছালে হামলাকারীরা পুনরায় তাদের ওপর চড়াও হন। বাধা দিতে গেলে ডা. তন্বীর মা ও হামলার শিকার হোন। পরবর্তীতে রাতে তন্বী ও তার মাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, ডা. নুসরাত তারিন তন্বী হাসপাতালের বিছানা থেকে সরাসরি ফোন দিয়ে কথা বলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেনের সঙ্গে। মন্ত্রী তাৎক্ষণিক জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেন এবং যত দ্রুত সম্ভব আসামিদের গ্রেপ্তার করার নির্দেশ দেন। তার নির্দেশে মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে ওইদিন রাতেই মূল আসামি মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ শহীদুল ইসলাম এবং পরদিন সকালে স্থানীয় নেতা জুলহাস মাতবরকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারের পাশাপাশি ডা. নুসরাত তারিন তন্বী ও তার পরিবারের আহত সদস্যদের চিকিৎসা ও নিরাপত্তা প্রদানে সংশ্লিষ্ট সকলকে সর্বোচ্চ নির্দেশনা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

এরআগে গত ২৯ জানুয়ারি যশোর চৌগাছা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর চিকিৎসাকে কেন্দ্র করে কর্মরত চিকিৎসক ডা. সোহাগ হামলার শিকার হন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্ত লাল সেন এর নির্দেশে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ওইদিন রাতেই মামলা গ্রহণ এবং আসামিকে যশোর থেকে আটক করেন।

এ বিষয় শরীয়তপুর জেলার সিভিল সার্জন ডা. আবুল হাদি মোহাম্মদ শাহ্‌ পরান বলেন, দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার দিন রাতেই একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আরেক জনকে বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, ১৭/ডি আজাদ সেন্টার, ৫৫ পুরানা পল্টন, ঢাকা ১০০০।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status