ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ১১ আষাঢ় ১৪৩১
বাগমারায় বাড়ির আঙিনায় পতিত জমিতে জনপ্রিয় হচ্ছে সবজি চাষ
নতুন সময় প্রতিনিধি
প্রকাশ: Tuesday, 19 September, 2023, 7:42 PM

বাগমারায় বাড়ির আঙিনায় পতিত জমিতে জনপ্রিয় হচ্ছে সবজি চাষ

বাগমারায় বাড়ির আঙিনায় পতিত জমিতে জনপ্রিয় হচ্ছে সবজি চাষ

বাগমারা উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের আমজাদ আলীর বাড়ির আঙ্গিনায় পতিত জমিতে সবজি চাষ করা হয়েছে। 

প্রান্তিক পর্যায়ের কৃষকেরা যেন খাদ্যসংকটে না পড়েন সে জন্য বসতবাড়ির আঙিনায় পতিত জমিতে সবজি চাষ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে কৃষি বিভাগ। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে কাজ শুরু করে দিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। বাগমারা উপজেলায় এ বছর নয় শত ৮৯ জন কৃষককে এই কর্মসূচির আওতায় আনা হচ্ছে। এতে বাড়ি বাড়ি এখন আঙিনায় সবজি চাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, বাগমারা উপজেলার বসতবাড়ির প্রতি ইঞ্চি জমিতে কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর পারিবারিক পুষ্টি বাগান স্থাপন প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করেছে। এ প্রকল্পের আওতায় উপজেলা জুড়ে  প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় পারিবারিক সবজি পুষ্টি বাগান করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় কৃষকের মাঝে বিনা মূল্যে সার, বীজসহ বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় । স্যাঁতসেঁতে ছায়াযুক্ত প্রতি ইঞ্চি অব্যবহৃত ও অনাবাদি জমিতে শাকসবজি ও ফলমূল উৎপাদন করা হচ্ছে। এতে মানুষের পুষ্টিহীনতা দূর হওয়ার পাশাপাশি খাদ্যনিরাপত্তাও নিশ্চিত হবে সংশ্লিষ্টরা জানান।

কর্মসূচির আওতায় বাগমারা উপজেলায় চলতি অর্থবছরে শাকসবজি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনা মূল্যে বীজ, সার, বেড়া, খুঁটি ও অন্যান্য উপকরণ সরবরাহ সহায়তা প্রদানের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিয়ে এবং সরকার প্রদত্ত বিনা মূল্যে সার বীজ গ্রহণপূর্বক বাড়ির প্রতি ইঞ্চি জমিতে বসতবাড়ির আঙিনায় পুষ্টি সবজি চাষ শুরু করেছেন পারিবারিক কৃষক-কৃষাণীরা। তারা তাদের বসতবাড়ির আঙিনায় লাল শাক, পুঁইশাক, ঢ্যাঁড়স, বরবটি, গাজর, কুমড়া, কলমি, বেগুন, গিমা কলমি, বেগুন ও করলার বীজ চাষ করেছেন।

বসতবাড়ির আঙিনায় পারিবারিক সবজি পুষ্টি বাগানকারী কৃষক-কৃষানীরা জানান, উপজেলা কৃষি অফিস কর্তৃক তাদের আঙিনায় পারিবারিক সবজি পুষ্টি বাগান করতে সমুদয় সার বীজ ও টেকনিক্যাল সাপোর্ট পেয়ে এই সবজি চাষ করেছেন। খুব ভালো সবজি হয়েছে ভবিষ্যতে তারূ নিজ উদ্যোগে এই পদ্ধতিতে কৃষি জমিতে সবজি চাষ করবেন বলে জানান। তারা আরও জানান, পুষ্টি বাগান করতে বিনা মূল্যে সার ও বীজের পাশাপাশি অন্য খাতে সরকারিভাবে সহায়তা পেলে কৃষকেরা এমন পদ্ধতিতে সবজি চাষে আরও আগ্রহী হবেন।

বাগমারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বাড়ির আঙিনায় প্রতি ইঞ্চি জমিতে পুষ্টি বাগান স্থাপন করা প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এতে করে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের পারিবারিক সচ্ছলতা ও দৈনন্দিন পুষ্টি চাহিদা মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। একজন কৃষক সারা বছরই খামার থেকে কিছু না কিছু পাবেনই। এই প্রকল্প হতে কৃষকদের প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status