রবিবার, ২৪ অক্টোবর, 2০২1
নতুন সময় প্রতিনিধি
Published : Friday, 24 September, 2021 at 6:48 PM
বিয়ে করতে যাচ্ছিলেন কনস্টেবল, হঠাৎ হাজির প্রেমিকা

বিয়ে করতে যাচ্ছিলেন কনস্টেবল, হঠাৎ হাজির প্রেমিকা

সারাবাড়িতে বিয়ের আয়োজন, বরযাত্রায় যাওয়ার জন্য প্রস্তুত অতিথিরাও। এমন সময় বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো হাজির এক তরুণী। তিনি বরের প্রেমিকা। সৃষ্টি হলো এক বিব্রতকর পরিস্থিতির। বিয়ের দাবিতে বর কনস্টেবল শামীম আহমেদ সম্রাটের বাড়িতে অনশন শুরু করেন ওই তরুণী।

এদিকে, ঝড়ের বেগে এ খবর ছড়িয়ে পড়ে পুরো গ্রামে। বর শামীমের প্রেমিকাকে দেখতে ভিড় জমায় উৎসুক জনতা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে ঝিনাইদহ শহরের আলহেরা পাড়ায়। অভিযুক্ত প্রেমিক শামীম আহমেদ সম্রাট ওই এলাকার বাবুল আক্তারের ছেলে। তার প্রেমিকা শারমিন কুষ্টিয়ার ভাদালীডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা।

শারমিন অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে সম্রাট কুষ্টিয়ায় কর্মরত ছিলেন। ওই সময় ফেসবুকে তাদের পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে পরিচয় গড়ায় প্রণয়ে। ভালোবাসার গভীরতা দুজনকে নিয়ে গেল শারীরিক সম্পর্কের দিকে। কুষ্টিয়ায় শামীমের বন্ধুর বাড়িতে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছেন দুজন। এরপরই আসে বাধা। শারমিন বিয়ের কথা বললেই নানা টালবাহানা শুরু করেন শামীম। এ নিয়ে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের কাছেও অভিযোগ করেন শারমিন। পরে শামীমকে বদলি করা হয় বাগেরহাটে।

তিনি আরো জানান, বাগেরহাট গিয়েও শামীমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি। বিষয়টি জানান সেখানকার পুলিশ সুপারের কাছে। এরপর নিজের বাড়ি ফিরে জানতে পারেন শামীম বিয়ে করছেন। খবর পেয়ে ঝিনাইদহে হাজির হয়েছেন শারমিন। সম্রাটের বাড়িতে অনশন করছেন বিয়ের দাবিতে। কিন্তু তাকে বাইরে রেখে শামীমের পরিবার গেটে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

কনস্টেবল শামীম আহমেদ সম্রাট তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করবেন বলে হুমকি দেন তার প্রেমিকা শারমিন।

প্রতিবেশীরা জানান, শারমিন মাস তিনেক আগেও বিয়ের দাবি নিয়ে কনস্টেবল শামীম আহমেদ সম্রাটের বাড়ি গিয়েছিলেন। তখন পুলিশ গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোনো মন্তব্য করেননি কনস্টেবল শামীম আহমেদ সম্রাট।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, মানবাধিকার কর্মীদের সহায়তায় মেয়েটিকে থানায় নেয়া হয়। তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অভিভাবকদের খবর দেওয়া হয়েছে।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার একেএম আরিফুল ইসলাম জানান, কিছুদিন আগে কনস্টেবল সম্রাটের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন শারমিন। কুষ্টিয়ায় তার বিরুদ্ধে এরই মধ্যে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। এরপরও অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বিষয়টি আরো গুরুত্ব সহকারে খোঁজ নিতে বলা হয়েছে।



পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত


DMCA.com Protection Status
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, ২৫/১ পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
Developed & Maintainance by i2soft