মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, 2০২1
নাজমুল হক শ্যামল
Published : Tuesday, 21 September, 2021 at 12:45 PM, Update: 22.09.2021 10:27:34 AM
সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব: ষড়যন্ত্র নয়তো?

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব: ষড়যন্ত্র নয়তো?

দেশের ছয়টি সাংবাদিক সংগঠনের ১১ জন নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে নানা মহল থেকে। এটি সাংবাদিকদের রাষ্ট্রের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেওয়ার গভীর ষড়যন্ত্র বলে মনে করছেন অনেকে। এ অবস্থায় এমন সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে চিঠি প্রত্যাহারের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতি দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর দেশজুড়ে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিয়েছে সাংবাদিক সংগঠনগুলো।

১২ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত বিভিন্ন পত্রিকার খবর মারফত জানতে পারি, মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধে গঠিত বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন ও সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খানসহ ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলব করে গত রোববার বিভিন্ন ব্যাংকে চিঠি পাঠায়। চিঠিতে মঙ্গলবারের মধ্যে নির্দিষ্ট ফরমে সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাবের সব তথ্য পাঠাতে বলা হয়। এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে হিসাব খোলার ফরম, কেওয়াইসি, ট্রানজেকশন প্রোফাইল শুরু থেকে এখন পর্যন্ত লেনদেনের বিবরণী।

এ কাজটি যারা করেছে তারা সরকারকে বিব্রত করতে চেয়েছে। আমার মনে হয় এটি সরকারের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের উসকে দেয়ার একটি পায়তারা। তারা চায় সরকার ও সাংবাদিকরা মুখোমুখি অবস্থানে থাকুক। এর মধ্য দিয়ে অন্য কোন ফায়দা হাসিল করতে চায় তারা। সাংবাদিকদের প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠনসমূহের নির্বাচিত শীর্ষ নেতাদের ব্যাংক হিসাব চেয়ে বিভিন্ন তফসিলি ব্যাংকে চিঠি দেয়ার ঘটনাটি বাংলাদেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেত্রী হিসেবে যেমন সাংবাদিক বান্ধব তেমনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও সাংবাদিকদের অভিভাবক। তার সময়ে দেশের ইতিহাসে সর্বপ্রথম বেসরকারি খাতে টেলিভিশনের যাত্রা শুরু হয়। তার সময়ে সবচেয়ে বেশি বেসরকারি টেলিভিশন এবং সবচেয়ে বেশি সংবাদপত্র ও অনলাইন পোর্টাল অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অতীতে কেউ বিপর্যস্ত সাংবাদিকদের কল্যাণে এভাবে এগিয়ে আসেননি, যেভাবে তিনি করোনাকালে অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। সম্প্রতি তিনি সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে দশ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। কোনো সাংবাদিকের বিদেশে চিকিৎসার প্রয়োজন হলে তিনি পাশে দাঁড়ান। কোনো সাংবাদিকের পরিবার অসহায় অবস্থায় পড়লে তিনি পাশে দাঁড়ান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারই সাংবাদিকদের কল্যাণে আইন প্রণয়ন করে ট্রাস্ট গঠন করেছে।

কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের তদন্ত হতেই পারে। কিন্তু, শুধু মাত্র একটি পেশার ১১ জন শীর্ষ নেতার ঢালাওভাবে ব্যাংক হিসাব তলব উদ্দেশ্যমূলক। নির্বাচিত শীর্ষ নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সব সংগঠন, প্রতিষ্ঠান ও সাংবাদিকতা পেশাকে জনমনে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে।  ইতোমধ্যে এ বিষয়টি দেশ-বিদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচার হচ্ছে। এতে দেশের ভাবমূর্তিও বিনষ্ট হচ্ছে। সরকারের দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের উচিত এ ঘটনার তদন্ত করে সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা করা। এতে করে সরকার ও গণমাধ্যমকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেয়ার কোন অপচেষ্টা হয়েও থাকলে রহিত হবে।

সাংবাদিকদের সম্পদের হিসাব প্রকাশ বা জমা দেয়ার বিরোধী নই আমি৷ তবে এটা যেন সব পেশার সবার জন্য হয়৷ কাউকে বা কোনো পেশার লোজনকে টার্গেট করে না হয়৷ এছাড়া প্রশ্ন যেহেতু উঠলোই একজন সংবাদকর্মী হিসেবে আমার মত হচ্ছে, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের কারো ব্যাংক হিসাবে যদি কোন অস্বাভাবিক লেন-দেন কিংবা কোন ধরনের মানি লন্ডারিং কিংবা জঙ্গি অর্থায়নের তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যায় তা যেন গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। আর যদি তা না হয় তবে সেটাও যেন যথাযথ গুরুত্বের সাথে জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়। যারা সাংবাদিক নেতা এবং বিভিন্ন ফোরামে নির্বাচন করেন তাদেরও উচিত নির্বাচনের আগে এবং নির্বাচনের পরে মেয়াদ শেষে সম্পদের হিসাব দেয়া৷

অবশেষে বলবো, আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান যদি মনে করে তাহলে ব্যাংক হিসাব তলব বা সম্পদের হিসাব চাইতেই পারে৷ আর এখানেতো সরকার সমর্থক এবং সরকার বিরোধী দুই দিকের সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাবই তলব করা হয়েছে৷ এর মাধ্যমে যদি সকল পেশার সদস্যদের হিসাবের প্রক্রিয়ায় আনা হয় তাহলে আরো ভালো৷ তাই আমাদেরও এত বেশি প্রতিক্রিয়া না দেখিয়ে বরং স্বচ্ছতা নিশ্চিত করাই জরুরি৷

নাজমুল হক শ্যামল: সম্পাদক, দৈনিক নতুন সময়


পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত


DMCA.com Protection Status
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, ২৫/১ পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
Developed & Maintainance by i2soft