সোমবার, ২৯ নভেম্বর, 2০২1
নতুন সময় প্রতিবেদক
Published : Wednesday, 31 March, 2021 at 6:44 PM
বেপরোয়া হয়ে উঠেছে সরকার বিরোধী বিএনপি-জামাত চক্র

বেপরোয়া হয়ে উঠেছে সরকার বিরোধী বিএনপি-জামাত চক্র

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী’র অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এবং বিএনপি-জামাতের প্রত্যক্ষ মদদে হেফাজতে ইসলামের ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ইউটিউবে সরকার-বিরোধী সিন্ডিকেটেড অপপ্রচার চলতে থাকলেও দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর নীরবতায় বিশ্ময় প্রকাশ করছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানা গেছে, গত ২৯, মার্চ ফেইসবুকে শাহানা রশিদ নামের জামাত ঘরানার এক নারী নরেন্দ্র মোদীর সফরের বিরোধীতা করে সরকারের বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক দিয়ে একটি পোষ্ট দেন, যেখানে তিনি আযহারী’র একটি ভিডিও বার্তাও প্রচার করেন।

এবিষয়ে প্রভাবশালী ইংরেজী পত্রিকা ব্লিটজ-এ একটি রিপোর্ট প্রকাশের পর আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোয় তোলপাড় শুরু হলেও শাহানা রশিদকে এই রিপোর্ট লেখা অব্দি গ্রেফতার করা হয়নি।

এবিষয়ে সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়ার আইনজীবী গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, “ফেইসবুকে মাওলানা আযহারী’র বক্তব্যের ভিডিওতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের কঠোর সমালোচনার পাশাপাশি ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক দেয়া হয়েছে, যা রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল। তাছাড়া, এভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উস্কানিমূলক কোনোকিছু প্রচার ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনেও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। গত কয়েকদিন যাবত দেশে হেফাজত এবং বিএনপি-জামাতসহ উগ্র মৌলবাদী অপশক্তি ও জঙ্গী গোষ্ঠী যে তাণ্ডব চালাচ্ছে, ওই নারীর ফেইসবুক স্ট্যাটাস একই সুত্রে গাথা। এবিষয়ে এখনি কঠোর আইনী ব্যবস্থা না নেয়া হলে অন্যরা আশাকারা পাবে বলে আমি মনে করি”।

উল্লেখ্য, শাহানা রশিদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ায় অর্থ পাচার এবং জঙ্গী অর্থায়নের অভিযোগ আছে। এরই মাঝে তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংক, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এবং দুর্নীতি দমন কমিশনে তথ্য জমা হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে শাহানা রশিদের ছেলে সজল মাহমুদ অনি নিজের ফেইসবুকে পাকিস্তানের পক্ষে ক্রমাগত স্ট্যাটাস দিচ্ছে বলেও জানা গেছে।

উল্লেখ্য, কয়েক বছর আগে অনি ভারতীয় নাগরিক সঞ্জীব সাহা-কে অপহরণ করলে পুলিশ ওই ভারতীয় নাগরিককে উদ্ধার করে। এবিষয়ে মামলা হলেও বিশেষ উপাইয়ে পরবর্তীতে সজল মাহমুদ অনি মামলার বিচার চলাকালে রহস্যজনকভাবে খালাশ পায়। অনিত বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসা, মাদক সেবন, ছিনতাই, ডাকাতি এবং নানা ধরনের অপরাধের অসংখ্য অভিযোগ আছে।  


পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত


DMCA.com Protection Status
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, ২৫/১ পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
Developed & Maintainance by i2soft