নতুন সময় ডেস্ক
Published : Wednesday, 11 July, 2018 at 7:53 PM, Count : 219
'লুইচ্চা রোমিও নাসির ও এক সামাজিক পতিতা'

'লুইচ্চা রোমিও নাসির ও এক সামাজিক পতিতা'

নাসির ও হোমায়রা সুবাহকে নিয়ে ফেসবুকসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় তুমুল বিতর্ক চলছে। একের পর এক বের হয়ে আসছে অশ্লীল ও অনৈতিক সম্পর্কের যত কর্মকাণ্ড। এসব জেনেশুনে স্তম্ভিত ও হতাশ দেশবাসী।

সর্বশেষ ফেসবুক লাইভে সুবাহ দাবী করেছে, নাসির একের পর এক মেয়েদের সাথে সম্পর্ক তৈরি করে মুতাহ বিয়ে করে শারীরিক সম্পর্ক করে থাকে। ফেসবুকে মেঘলা আকাশ নামে একজন একজন সুবাহ-নাসিরের সম্পর্ক নিয়ে যে অদ্ভুত প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে, তা তুলে ধরা হলো।

'তেমন লেখাপড়া নেই। গ্রামের সাধারণ একটা পরিবার থেকে উঠে আসছে। এসব ছেলেগুলি ক্রিকেটার নাহলে হয়তো বড় হওয়ার সাথে সাথেই গ্রামের কোন মুদি দোকানে চাকরি করতো, নাহয় বাবার কিনে দেয়া সিএনজি চালিয়ে পাশের গ্রামের একটা মেয়েকে বিয়ে করেই সুন্দর জীবনযাপন করতো…

কিন্তু না… সে হয়ে গেছে একজন ক্রিকেটার, আমরা বানিয়ে দিলাম তাকে বীর, অঘোষিত সেক্টর কমান্ডার। তাঁকে আর ঠ্যাঁকায় কে…

অপ্রাত্যাশিত পপুলারিটি, আর ধন সম্পদ পেয়ে অল্পদিনেই সে হয়ে গেছে ‘লুইচ্চা রোমিও’ যে রোমিওর নোংরা প্রেমালাপ এখন বেড-রুম ছেড়ে সমাজের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে আছে।

নাসিরের মত মুর্খ রোমিও বুঝেনি তাকে বলির পাঠা বানিয়ে এ মেয়ে একটা সময় সুযোগ নিবে। মোহে অন্ধ হয়ে সে আর দশটা অপকর্মের মতই এটাও করে গেছে।

সুবাহ মেয়েটার যতগুলি অডিও-ভিডিও আমি দেখেছি তাতে মনে হয়েছে, সে রীতিমত একটা ‘সামাজিক পতিতা’- যারা কিনা নারীত্বটাকে পুঁজি বানিয়ে এই সুশিল সমাজ থেকে প্রতিনিয়ত ফায়দা নিয়ে যাচ্ছে… নারী অধিকারের নামে পুরুষ নির্যাতন করে চলছে… এদের সংখ্যা নেহাত কম নয়।

শুধু এই লেখাটা লেখার জন্য আমি তার প্রোফাইল চেক করেছি, খুঁজে খুঁজে প্রায় অডিও-ভিডিও শুনেছি।

কখনোই মনে হয়নি সে সাধারণ একটি মেয়ে। বরং তার মুখের ভাষা, মায়ের কথা, জীবনাচরণ এসব দেখেই মনে হয়েছে সে বড় ভয়ংকর। এগুলি সে প্ল্যান করেই করেছে, আর ভালবাসা? সেটাতো স্রেফ ধান্ধা, নাসিরের মত ছেলে ক্রিকেটার নাহলে এই মেয়ে এই ছেলের পাশেও বসতে চাইতো না। ‘চাপাভাংগা’ বলে গালি দিয়ে চলে যেতো।

মেয়েটা তার আপন চাচিকে (…) বলে সম্মোধন করে, সে পুরো নারী জাতকে ‘মাল’ বলে দাবি করে। নিজের মাকে বলে যে, নাসির যদি আরো উল্টা পাল্টা করে তাহলে সে তার কাছে থাকা খুব গোপন ভিডিওটাও নেটে ছেড়ে দিবে। তার কোরআন খতম দেয়া মা আবার তার কথায় সাড়া দেয়! ভাবতে পারেন এটা কোন সমাজের মা আর কোন সমাজের মেয়ে?
রাষ্ট্র, প্রজারা ভুল করবেই, রাষ্ট্রের কাজ হলো সেই ভুলগুলির বিপরীতে কার্যত শাস্তি রাখা। লাগাম টেনে ধরা।

আমি মনে করি বর্তমানে চারপাশের এই অশ্লীলতা, যৌন উন্মাদ পরিবেশের জন্য সবচেয়ে বেশি রাষ্ট্র ও সমাজই দায়ী। এই দুইয়ের নির্লিপ্ততাই এই অপকর্মগুলিকে সামনে এগুতে সাহায্য করছে।

অতীতেও যখন অনেকের মাধ্যমে (প্রভা+অন্যান্য) এই অপরাধগুলি হয়েছে, তখন এই রাষ্ট্র, সমাজ চুপ ছিল।
বরং কিছু সমাজ সংস্কারক তো প্রভার ভিডিও ছেড়ে দেয়ার অপরাধে রাজিবের নামে মামলা করার কথা বলেছেন! প্রভা এখন আবার এ সমাজের প্রতিষ্ঠিত নায়িকা!

আমার প্রশ্ন! এখন যে সুবাহ নিজেই নিজের অপকর্মের ভিডিও-অডিও নেটে ছড়িয়ে দিল, তাহলে কি তারা এখন সুবাহর নামে মামলা করবে?

কি আশ্চর্য! পর্ণগ্রাফি কম্পিউটারে রাখলে পুলিশে ধরে নিয়ে যায়, অথচ যারা পর্ণোগ্রাফি বানায় তাদেরকে এ সমাজ আদর করে আলমিরাতে সাজিয়ে রাখে। এই করলে নারীর ইজ্জত চলে যায়! ঐ করলে নারীর ইজ্জত চলে যায়! নারীবাদিদের সেকি প্রতিবাদ। এখন আমার প্রশ্ন হলো, সুবাহ মেয়েটা যে পুরো নারী জাতটাকে ‘মাল’ বলে আখ্যায়িত করলো, এখন কি তার বিরুদ্ধে কোন ব্যাবস্থা নেয়া হবে না? নাকি কবি এখানে নিরব?

ফেসবুক একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। শুনেছি এখানে অন্যায় কিছু করলেই গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।
তাহলে যারা এই সামাজিকমাধ্যমে বুক ফুলিয়ে অসামাজিক কর্মকাণ্ড করে বেড়াচ্ছে তাদেরকে গ্রেফতার করা হবে না কেন?

এই গুটি কয়েক অসভ্যের কাছে পুরো জাতি কি জিম্মি হয়ে থাকবে? নাকি রাষ্ট্র কার্যকরী পদক্ষেপ নিবে? রাষ্ট্র কি শুনছে আমার কথা?'



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, বাড়ি ৭/১, রোড ১, পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: newsnotunsomoy@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft