নতুন সময় ফান ডেস্ক
Published : Friday, 4 May, 2018 at 8:55 PM, Count : 75
উদঘাটিত হলো ইন্টারনেট আবিষ্কারের হাজার বছরের পুরোনো ইতিহাস

উদঘাটিত হলো ইন্টারনেট আবিষ্কারের হাজার বছরের পুরোনো ইতিহাস

বর্তমান সময়ে আমাদের জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রযুক্তি কোনটি?- এ প্রশ্নের উত্তরে প্রথমেই আমাদের মনে আসবে ইন্টারনেটের কথা। একবিংশ শতাব্দীতে আমাদের যাপিত জীবনের অনেকটাই এই ইন্টারনেট ঘিরে।  এর কানেকশন থেকে বেশিক্ষণ দূরে থাকলে আমরা একধরণের গভীর বিষাদে আক্রান্ত হই। তথ্য ও জ্ঞানের অসীম এ ভান্ডার হাতের কাছে পাওয়ার কৃতিত্ব দেয়া হয় পাশ্চাত্যের গবেষক ও বিজ্ঞানীদের। কিন্তু  ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সদ্য নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের দেয়া বক্তব্যে প্রকাশিত হয় নতুন চাঞ্চল্যকর তথ্য! সম্প্রতি আগরতলায় এক অনুষ্ঠানে তিনি দাবি করেন, ইন্টারনেটের উৎপত্তি প্রাচীন ভারতবর্ষেই! মহাভারতের রেফারেন্স দিয়ে তিনি বলেন, 'সঞ্জয় যুদ্ধে না গিয়েই ধৃতরাষ্ট্রকে কুরুক্ষেত্রের নির্ভুল বর্ণনা কীভাবে দিয়েছিলেন? এ থেকে বুঝা যায়, সে যুগেই ভারতবর্ষে ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট প্রযুক্তি ছিল।'

তিনি আরো বলেন, 'ইউরোপ আমেরিকার বিজ্ঞানীরা ইন্টারনেট আবিষ্কারের কৃতিত্ব নিলেও এই প্রযুক্তি আসলে আমাদের।' ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে সমর্থন জানিয়ে ত্রিপুরার গভর্নর তথাগত রায় টুইটারে লিখেছেন যে, 'দিব্যদৃষ্টি, পুস্পকরথ ইত্যাদি পৌরাণিক প্রযুক্তি কোনভাবেই নিছক কল্পনা হতে পারে না। নিশ্চয়ই এটি নিয়ে সে যুগে গবেষণা করা হয়েছিলো।'

ধারণা করা হয়, ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি ভারত থেকে যেসব জিনিস পাচার করেছে সেগুলোর মধ্যে ইন্টারনেট প্রযুক্তিও ছিল। পরবর্তীতে ইউরোপ ও আমেরিকার বিজ্ঞানীদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ইন্টারনেট বর্তমান রূপে আবির্ভূত হয়। ভারতীয় এই আবিষ্কার চুরি করে পশ্চিমাদের গৌরব অর্জনের কথা প্রকাশ পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এ উপমহাদেশের অনেকেই।

এছাড়া ইতিহাস বিষয়ক গবেষকদের ভাষ্যমতে, ভারতীয়রা শুধু ইন্টারনেট আবিষ্কার করেই থেমে থাকেননি, তৎকালীন অন্যান্য সভ্যতার কাছে এই প্রযুক্তি রপ্তানি করার প্রমাণও বর্তমানে আবিষ্কৃত হয়েছে। এই তথ্য প্রকাশ পাবার পর প্রাচীন মিশরীয় সভ্যতার অন্যতম নিদর্শন পিরামিড তৈরির কারণকে নতুন দৃষ্টিতে দেখা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, সুউচ্চ পিরামিডসমূহ তৈরি ওয়াইফাই রাউটার হিসেবে, যাতে করে সুদূর ভারতবর্ষ থেকে ইন্টারনেট পেতে মিশরীয় নাগরিকদের অসুবিধা না হয়। বেতার প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান, যোগাযোগ রক্ষা থেকে শুরু করে আন্তঃসভ্যতা প্রেমের কথাও শোনা যায়। সে সময়ের ইন্টারনেটে 'মুখপুস্তিকা' নামক বহুল ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বর্ণনাও কতিপয় প্রাচীন শিলালিপিতে পাওয়া গেছে বলে তাঁরা জানিয়েছেন।

মার্ক জাকারবার্গ এই প্রাচীন ভারতীয় ইন্টারনেটের কথা সম্পর্কে জানতে পেরে আবেগভরা কন্ঠে বলেন, 'এই ফেসবুক সৃষ্টি করে আমি ইন্টারনেট জগত সচল রেখেছি। অথচ আমাকে আজ দুয়েকটা সামান্য তথ্য শেয়ার করার অভিযোগে করা হচ্ছে অবর্ণনীয় লাঞ্ছনা, তাও আবার আমার নিজের ওয়েবসাইটেই! এ রকম চলতে থাকলে আমি বলে দিচ্ছি, এই ইন্টারনেটে আমি আর আমার ফেসবুক রাখবো না। প্রাচীন ভারতীয় ইন্টারনেটেই আমি খুলবো নতুন ফেসবুক। সেখানে আমার হেটাররা জায়গা পাবে না।'

এ খবরটি সত্য নয়


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, বাড়ি ৭/১, রোড ১, পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: newsnotunsomoy@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft