নতুন সময় ডেস্ক
Published : Thursday, 15 March, 2018 at 11:08 AM, Update: 15.03.2018 11:10:57 AM, Count : 270
আসছে ফেসবুক ভিত্তিক ডিজিটাল মশার কয়েল : জাকারবার্গের প্রতি কৃতজ্ঞ ঢাকাবাসী

আসছে ফেসবুক ভিত্তিক ডিজিটাল মশার কয়েল : জাকারবার্গের প্রতি কৃতজ্ঞ ঢাকাবাসী

ফেসবুক এখন আর শুধু মাত্র একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নয়, ফেসবুক এখন সামাজিক সমস্যার অন্যতম সমাধান মাধ্যমও বটে। তারই প্রতিফলনে এবার আসছে ফেসবুক ভিত্তিক ডিজিটাল মশার কয়েল। মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ট ঢাকাবাসী পেতে যাচ্ছেন বেঁচে থাকার অবলম্বন।
বরাবরের মত এবারো জাকারবার্গ ফেসবুক লাইভে এসে তার এই নতুন উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন। দেখিয়েছেন কিভাবে এই কয়েল জ্বালাতে হয়। বর্ণনা করেছেন এই কয়েলের বিভিন্ন ফিচারস। কয়েলের প্যাকেট প্রদর্শনকালীন সময়ে ছবি তুলেছেন ফটো সাংবাদিক অর্ণব আহম্মেদ মামুন।
দেখতে সাধারন মশার কয়েলের মত হলেও এই কয়েলে আছে হিডেন মাইক্রোচিপ। কয়েল জ্বালালেই মাইক্রোচিপ অ্যাক্টিভ হয়ে যাবে। ফলে কয়েল জ্বলাকালীন সময়ে রুমে মশা ঢুকলেই ফেসবুকে আসবে নোটিফিকেশন।
এছাড়া কয়েলের স্ট্যান্ডে থাকছে মিনি ডিএসএলআর ক্যামেরা। ফলে প্রতিটা মশা মরার সাথে সাথে সেই মশাটির ছবি এবং লোকেশন স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলে আসবে ইনবক্সে।
এই কয়েলের ধোয়া প্রতিটা মশার ফিংগার প্রিন্ট কালেক্ট করতে সক্ষম। কোন মশা কামড় দিয়ে পালিয়ে গেলে ফিংগার প্রিন্ট মিলিয়ে তাকে খুঁজে আনতে পারদর্শী এই ফেসবুক কয়েল।
জাকারবার্গ এটাকে রোবোটিক কয়েল উল্লেখ করে বলেন, 'রোবট সোফিয়া পরবর্তী সময়ে এই 'ফেসবুক মসকিউটো কয়েল' হবে আগামী বছরের টক অব দ্য ওয়ার্ল্ড। '
'কয়েল জ্বালিয়ে হয়ে যান সেলিব্রেটি', এই ব্যানারের আওতায় প্রথম ছয়মাস থাকছে স্পেশাল অফার। ফেসবুক কয়েলের মাধ্যমে আপনার রুমের একটি মশা মরলে আপনার ফেসবুকের ফলোয়ার স্বয়ংক্রিয়ভাবে দুইজন বেড়ে যাবে।
এই ঘটনায় ঢাকাবাসী জাকারবার্গের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে স্ট্যাটাস দেয়া শুরু করেছে। অনেকেই জাকারবার্গকে ঢাকার মেয়র হিসেবে দেখতে চেয়েছেন।
-এ খবরটি সত্য নয়


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, বাড়ি ৭/১, রোড ১, পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: newsnotunsomoy@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft